3 দিন ব্যাপী স্ক্রীন প্রিন্টিং ট্রেনিং

A)প্রিন্টিং ট্রেনিং( এডভান্স)
B)স্মল প্রিন্ট প্রজেক্ট
C) প্রিন্ট & সুইং (নিজেস্ব)
ট্রেনিং টাইম? কি কি শেখানো হয় এবং কত টাকা চাজ?
> মিনিমান ৩ দিন আপনাকে ট্রেনিং করতে হবে বাট আপনি চাইলে ৩০ দিন ও আসতে পারবেন।
-) কি কি শেখানো হয়?
১.এডভান্স লেবেল ফুল স্কিন প্রিন্টিং ট্রেনিং।
২. প্রিন্ট ডিটেইলস নোট শিট দেওয়া হবে এবং সব বুঝিয়ে দেওয়া হবে। নোটে সব সুত্র থাকবে।
৩. স্কিন ফ্রেম রেডি এবং এস্কপোজিং( ফ্রেম তৈরি ও দুই বা ততধিক কালার এর এক্সপোজিং এবং ফাইনালি সঠিক ভাবে সব ধরনের স্কিন প্রিন্টিং ট্রেইনার কে হাতে ধরে শেখানো হয়।)
৪) যত টাইপের প্রিন্ট করা হয় সেইগুলার ক্যামিকেলস এবং কিভাবে মিস্ক করবে ডিটেইলস দেখানো হয়।
এবং নিচের কাজ গুলা নিজ হাতে ট্রেইনার নিজ হাতে শিখতে পারবে।-(রাবার, পিগমেন্ট, প্লাস্টিসল -হাইডেনসিটি, ফয়েল, ফ্লক, পাফ্ফ, স্টিকার, সাবলিমেশন, বিটস, গ্লিটার, আপসন,
তাছাড়া এই . প্রিন্ট গুলা করার সুত্র দেওয়া হবে।
রিয়াক্টিব, রিফ্লেক্টিব, রোডিয়াম, স্টোন, জেল, এরোমা , স্টিকার ইত্যাদি।
প্রতি সপ্তাহে একবার অনলাইন এ ট্রেইনারদের ভিভিন্ন প্রবলেম সলুশন দেওয়া হয়।তাছাড়া যে কোনো সমায় আমাদের ফোন দিলে সাথে সাথে আমরা রিপলাই দেওয়া হয়।চার্জ -৩৫০০/
অনলাইন ট্রেনিং ২০০০/ চার্জ।
-ছোট্ট আকারে প্রিন্টিং প্রজেক্ট করতে কি কি মেশিন লাগবে এবং খরচ কেমন পড়বে নিজ এলাকায় প্রজেক্ট করতে পারবে কি না?
*-প্রয়োজনীয় মেশিনস এবং ক্যামিকেলস/
ক).টেবিল সেট( দুই বা ততধিক কালার মেজারমেন্ট এর সাথে প্রিন্ট করার জন্য একটা প্লেস লাগবে যেখানে টি-শার্ট, থ্রি -পিস, পানজাবি, টিসু বেগ বসানো যায় সেটা হতে পারে টেবিল অথবা মেশিন)
৩ বোর্ড টেবিল – ৮৫০০/=, ৬ বোর্ড – ১৩০০০/= এবং ১০ বোর্ড টেবিল ১৭৫০০/
তাছাড়া আপনি ৪/৪ মেশিন নিতে পারবেন ৪৫০০০/
খ) এস্কপোজিং মেশিন সেট – ৫০০০/=( আপনি চাইলে সূ্যের আলো বা লাইট দিয়েই করতে পারবেন বাট যখন ভালো কোয়ালিটি কাজ করবেন তখন একটা প্রোগ্রামএবল এস্কপোজিং মেশিন সেট দরকার।
গ) একটা ইন্ডাস্ট্রিয়াল ডায়ার – ১৭০০/- থেকে ২৮০০/ ডিপেন্ডে অন কোয়ালিটি।
খ) স্পে গান – ৪৩০/( এক্সপোজিং এর পর স্কিন টা কে ওয়াশ করার কাজে লাগে)
ঘ) স্কিন ফ্রেম – ২২০ থেকে ১২০০(শাড়ির ফ্রেম)/ প্রাইজ ডিপেন্ড অন সাইজ এবং কোয়ান্টিটি।
ঙ) কিছু ক্যামিকেলস এবং এক্সোসরিস – ২৫০০ থেকে ৩৫০০ টাকা। আনুমানিক।

প্রশিক্ষণ

স্ক্রীন প্রিন্ট শুরুর আগে অভিজ্ঞ কারও সহযোগী হিসেবে কিছুদিন কাজ করলে ব্যবসার বিস্তারিত জানা যাবে। এই ব্যবসা করতে হলে কিছুটা লেখাপড়া জানলে ভালো। তাহলে অর্ডার বুঝে নেওয়ার সুবিধা হবে। এছাড়া উদ্যোক্তাকে সৃজনশীল হতে হবে। কারণ নতুন নতুন ধারণা ও ডিজাইন তৈরি করতে না পারলে প্রতিযোগীতায় টিকে থাকা কঠিন হবে। বর্তমানে বাংলাদেশে ক্ষুদ্র ও কুটির শিল্প প্রতিষ্ঠান (কারিগরি স্ক্রীন প্রিন্টিং প্রশিক্ষণ), ” ভর্তি ফর্ম ” সরকারি ও বেসরকারি প্রতিষ্ঠান স্ক্রীন প্রিন্টের প্রশিক্ষণ দিয়ে থাকে। এসব প্রতিষ্ঠান থেকে অর্থের বিনিময়ে স্ক্রীন প্রিন্টের প্রশিক্ষণ নেওয়া সম্ভব।

Leave A Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Cart
Your cart is currently empty.